Hello,

একটি ফ্রি একাউন্ট খোলার মাধ্যমে বই প্রেমীদের দুনিয়ায় প্রবেস করুন..🌡️

Welcome Back,

অনুগ্রহ করে আপনার একাউন্টি লগইন করুন

Forgot Password,

আপনার পাসওয়ার্ড হারিয়েছেন? আপনার ইমেইল ঠিকানা লিখুন. আপনি একটি লিঙ্ক পাবেন এবং ইমেলের মাধ্যমে একটি নতুন পাসওয়ার্ড তৈরি করবেন।

Please briefly explain why you feel this question should be reported.

Please briefly explain why you feel this answer should be reported.

Please briefly explain why you feel this user should be reported.

বই প্রেমীদের দুনিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

এমন হলে ব্যাপারটা কেমন হয়? বাংলা ভাষা-ভাষি সকল লেখক এবং পাঠকগণ একই যায়গায় থাকবে এবং একই প্লাটফর্মে তাদের বই সম্পর্কিত অনুভূতিগুলো শেয়ার করবে। যেখানে শুধুমাত্র বই সম্পর্কিত আলোচনা হবে। কখন কোন বই প্রকাশিত হয়েছে বা হবে তা মুহুর্তেই বই প্রেমিরা জানতে পারবে। প্রিয় পাঠক, নিশ্চয়ই আপনি বই পড়তে অনেক ভালোবাসেন। আপনার লেখা বইয়ে রিভিউ গুলো খুবই সুন্দর, তাই পড়তে অনেক ভালো লাগে। বাংলাদেশে এই প্রথম পাঠকদের জন্য "বাংলাদেশ পাঠক ফোরাম" তৈরি করেছে boiinfo.com নামে চমৎকার একটি কমিউনিটি ওয়েবসাইট। এখানে আপনি আপনার বই সম্পর্কিত অনুভূতিগুলো ছড়িয়ে দিতে পারেন লাখো পাঠকের কাছে। এই ওয়েবসাইটের কি কি সুবিধা রয়েছে? এখানে খুব সহজেই অর্থাৎ শুধুমাত্র একটি ইমেইল এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে ফ্রিতে একটি অ্যাকাউন্ট খুলে আপনি হয়ে যেতে পারেন বইইনফো.কম এর একজন সম্মানিত লেখক। ১. থাকছে ফেসবুকের মত চমৎকার একটি প্রোফাইল। ২. একজন পাঠক অপরজনকে মেসেজ করার সুবিধা ৩. প্রিয়ো ক্যাটাগরি, লেখক, পাঠক, অথবা ট্যাগ ফলো দিয়ে রাখলেই ঐ সম্পর্কিত বইয়ের নটিফিকেসন। ৪. বই রিলেটেড বেশি বেশি আর্টিকেল লিখে এবং বই সম্পর্কিত প্রশ্ন করে জিতে নেয়া যাবে পয়েন্টস, স্পেশাল ব্যাজ এবং আকর্ষণীয় বই উপহার। ৫. যারা নিয়মিত পাঠক তাদের জন্য থাকছে ভেরিফাইড প্রোফাইল সহ আরো অনেক কিছু! বইইনফো.কম এর উদ্দেশ্য হলো বাংলা ভাষাভাষী সকল লেখক ও পাঠকদের কে একত্রিত করা। 💕লাইফ টাইম মেম্বার সিপ 💕কোন ধরনের সাবস্ক্রিপশন ফি নেই ♂️রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ করুন মোট দুটি ধাপে। ১. সংক্ষিপ্ত তথ্য ও ইমেইল আইডি দিয়ে সাইন আপ করুন। ২. ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করুন। তাই দেরি না করে এখনি চলে আসুন বইয়ের দুনিয়ায়, আমরা তৈরি করতে চাই বই পাঠকের এক নতুন দুনিয়া! ফ্রি রেজিস্ট্রেশন করতে এখনই ক্লিক করুন। ♂️ boiinfo.com

দুআ যিকির রুকইয়া | লেখক সাঈদ ইবনে আলী আল কাহতানী

দুআ যিকির রুকইয়া | লেখক সাঈদ ইবনে আলী আল কাহতানী
5/5 - (12 votes)
  • দুআ যিকির রুকইয়া
  • লেখক : সাঈদ ইবনে আলী আল কাহতানী
  • প্রকাশনী : আরিশ প্রকাশন
  • বিষয় : দুআ ও যিকির
  • অনুবাদক : আহমাদ ইউসুফ শরীফ
  • পৃষ্ঠা : 240, কভার : হার্ড কভার
  • ভাষা : বাংলা

দুআ অতি গুরুত্বপূর্ণ ও মর্যাদাপূর্ণ ইবাদত

মহান আল্লাহর সাথে ক্ষুদ্র বান্দার এক মুবারক সেতুবন্ধন। এই অমূল্য সূত্রের যত বেশি কদরদানী (মূল্যায়ন) বান্দা করবে, মহান আল্লাহর সাথে তার বন্ধন ততই দৃঢ় উন্নত হবে। আর আল্লাহ তাআলার সাথে মজবুত সম্পর্কই হচ্ছে বান্দার পরম সৌভাগ্য।

দুআ আল্লাহকে স্মরণ করার এক উন্নত পন্থা, আর আল্লাহকে স্মরণের মাধ্যমেই দুনিয়ার সবকিছু আলোকিত হয়ে ওঠে। মানুষের মন-মস্তিষ্ক, আমল-ইবাদাত, কাজ-কর্ম সবকিছুই আলোকিত হয় আল্লাহর স্মরণের দ্বারা।

হাদিস শরীফে আল্লাহর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামইরশাদ ফরমান, ألا إن الدنيا ملعونة ملعون ما فيها إلا ذكر الله وما والاه وعالم أو متعلم “নিশ্চয়ই দুনিয়া ও তার সবকিছুই অভিশপ্ত; শুধু আল্লাহর স্মরণ ও তৎসংশ্লিষ্ট বিষয়াদি এবং আলিম বা ইলমে দ্বীনের শিক্ষার্থী ছাড়া।

ভালোভাবে লক্ষ করলে দেখা যাবে, দুনিয়াতে মানুষের জীবন মৌলিকভাবে দুই ধরনের : আল্লাহমুখী জীবন ও আল্লাহ-বিস্মৃত জীবন। আল্লাহমুখী জীবনের বৈশিষ্ট্য হচ্ছে : পবিত্রতা, নির্মলতা, শান্তি ও প্রশান্তি। পক্ষান্তরে আল্লাহ-বিস্মৃত হচ্ছে : অবক্ষয় ও অনুতাপের জীবন। প্রান্তিকতা ও সীমালঙ্ঘনের জীবন। অনাচার ও যথেচ্ছাচারের জীবন।

পৃথিবীতে কোনো জীবনকে যদি “আল্লাহর রহমত-বঞ্চিত জীবন” নামে আখ্যায়িত করতে হয় তাহলে নিঃসন্দেহে সেটি হচ্ছে আল্লাহ-বিস্মৃত জীবন। আল্লাহ-বিস্মৃতির অনিবার্য পরিণাম আত্মবিস্মৃতি। যে আল্লাহকে ভুলে যায় সে নিজের প্রকৃত কল্যাণ অকল্যাণ ভুলে যায়। নিজের অনিবার্য পরিণাম ও পরিণামের ভালো-মন্দ ভুলে যায়। সব ভুলে সে যাপন করে এক স্বেচ্ছাচারী জীবন, যা শুধু তার নিজের জন্যই নয়, তার চারপাশের সবার জন্য অশান্তি-উৎকণ্ঠার এক মর্মন্তুদ ধারা তৈরি করে।

বান্দাদের সতর্ক

আল্লাহ তাআলা কুরআন মাজীদে কত গভীরভাবে তাঁর বান্দাদের সতর্ক করেছেন, ইরশাদ হয়েছে,

ولا تكونوا كالذين نسوا الله فأنساهم أنفسهم أوليك هم الفاسقون “তোমরা তাদের মতো হয়ো না, যারা আল্লাহকে ভুলে গিয়েছে, ফলে আল্লাহ তাদের আত্মবিস্মৃত করে দিয়েছেন। ওরাই তো অবাধ্যচারী।”

যে মুমিন আল্লাহকে স্মরণ রাখবে। জীবনের সকল ক্ষেত্রে আল্লাহর স্মরণ হবে তার প্রধান বৈশিষ্ট্য। আল্লাহর স্মরণের এক গুরুত্বপূর্ণ প্রকার হচ্ছে দ্বীনি ইলম অর্জন করা। ইসলামের আকীদা, আহকাম, আখলাক সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান অর্জন করে তার আলোকে নিজের বিশ্বাস, কর্ম, স্বভাব-চরিত্র, আচার-আচরণ গঠন করা। কুরআন মাজীদের বিভিন্ন জায়গায় জীবনযাত্রার বিভিন্ন প্রসঙ্গে আল্লাহকে স্মরণ রাখার আদেশ করা হয়েছে।

যার তাৎপর্য হচ্ছে আল্লাহ তাআলার হুকুম-আহকাম সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করে বাস্তব জীবনের ওইসব ক্ষেত্রে তা স্মরণ রাখা। তাহলে দেখা যাচ্ছে, ইলম ও যিকির পরস্পর অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত। আল্লাহ তাআলার স্মরণ সঠিক পন্থায় তখনই হবে, যখন দ্বীনি ইলম অর্জন করা হবে। আর ইলম অর্জন তখনই যথার্থ ও ফলপ্রসূ হবে, যখন তার সাথে আল্লাহর স্মরণ থাকবে।

এ দিক থেকে চিন্তা করলে উপরোক্ত হাদিস শরীফে ইলম ও যিকিরের একত্র উল্লেখের তাৎপর্য খুব স্পষ্টভাবে বোঝা যায়। আল্লাহর স্মরণের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রকার হচ্ছে: মাসনূন দুআসমূহ যত্নের সাথে পাঠ করা। [3] সূরা হাশর, ৫৯:১৯

মাসনূন দুআ

মাসনূন দুআ মানে নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামথেকে বর্ণিত দুআ। এ দুআগুলো তাঁর পবিত্র জীবনের এক অনন্য বৈশিষ্ট্য। গভীর অর্থ-মর্ম, আল্লাহ তাআলার সব রিযা ও বন্দেগীর নিখুঁত বহিঃপ্রকাশ এই দুআগুলো। তাই নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের অনুসরণে আল্লাহর বান্দা যখন এই দুআগুলোর মাধ্যমে আল্লাহ তাআলার নৈকট্য অর্জনে প্রয়াসী হয় তখন সে এসবের অর্থ মর্ম-তাৎপর্য যত দূরই উপলব্ধি করুক, আল্লাহর নৈকট্য অর্জনে অনেক দূর অগ্রসর হয়ে যায়।

বিভিন্ন সময় ও অবস্থায় দুআগুলো যথানিয়মে পাঠ করার দ্বারা জীবনের ওই সময় ও অবস্থাগুলো আল্লাহর স্মরণে ভাস্বর হয়ে ওঠে। জীবনের অতি সাধারণ বিষয়গুলো পর্যন্ত অসাধারণ জ্যোতির্ময় হয়ে ওঠে।

খাবার-দাবার, নিদ্রা-জাগরণ, হাসি-কান্না, আয়-উপার্জন, দেখা সাক্ষাৎ, আসা-যাওয়া, ওঠা-বসা, সবকিছুই পুণ্যের খাতায় লেখা হতে পারে। কত সৌভাগ্য আল্লাহর ওই বান্দার! যার প্রাত্যহিক জীবনের অতি সাধারণ কাজগুলোও কিয়ামতের ময়দানে নেক আমলের পাল্লায় ওজন করা হবে। আমাদের কর্তব্য জীবনকে আল্লাহর স্মরণ ও দুআ মুনাজাতের মাধ্যমে আবাদ করা। যিকির ও দুআ সম্পর্কে সহিহ ইলম অর্জন করে যত্নের সাথে আমল করা।

আলহামদুলিল্লাহ, আমাদের আলিমগণ মুসলিম ভাই-বোনের প্রতি কল্যাণকামিতা থেকে সহিহ হাদিসের আলোকে যিকির ও দুআর অনেক বই সংকলন করেছেন। আল্লাহর বান্দারা সেসব বই থেকে উপকৃতও হচ্ছেন।

Md Rafsan

Md Rafsan

বইইনফো ডট কম একটি বই সম্পর্কিত লেখালেখির উন্মুক্ত কমিউনিটি ওয়েবসাইট। শুধু মাত্র একটি ফ্রি একাউন্ট খোলার মাধ্যমে আপনিও লিখতে পারেন যে কোনো বই সম্পর্কে, প্রশ্ন করতে পারেন যে কোনো বিষয়ের উপর।

Related Posts

Leave a comment

নতুন প্রকাশিত হওয়া আর্টিকেলগুলো

boiinfo.com Latest Articles

অনাকাঙ্ক্ষিত বাঁধন

অনাকাঙ্ক্ষিত বাঁধন

...

খেলা আসক্তি

খেলা আসক্তি

...

রউফুর রহীম কেন পড়বেন?

রউফুর রহীম কেন পড়বেন?

...

রূপকথন   –   বন্যা হোসেন

রূপকথন – বন্যা হোসেন

...

মা  –  আনিসুল হক

মা – আনিসুল হক

...

প্রিয় মায়াবতীর মায়া

প্রিয় মায়াবতীর মায়া

...

প্রিয় মায়াবতীর মায়া

প্রিয় মায়াবতীর মায়া

...

ফুল ফুটেছে বনে : আবদুল হক

ফুল ফুটেছে বনে : আবদুল হক

...

জমজম :যুবাইর আহমাদ তানঈম

জমজম :যুবাইর আহমাদ তানঈম

...

নারীবাদী বনাম নারীবাঁদি

...

কথুলহু    –   আসিফ রুডলফায

কথুলহু – আসিফ রুডলফায

...

তাফসীরে উসমানী

তাফসীরে উসমানী

...

And Then There Were None    –    Agatha Christie

And Then There Were None – Agatha Christie

...

বিষাদবাড়ি    –     Nahid Ahsan

বিষাদবাড়ি – Nahid Ahsan

...

ছায়ানগর

ছায়ানগর

...

মনে থাকবে    –     আরণ্যক বসু

মনে থাকবে – আরণ্যক বসু

...

And Then There Were None   –    Agatha Christie

And Then There Were None – Agatha Christie

...

পিনবল

পিনবল

...

লেজেন্ড    –    ম্যারি লু

লেজেন্ড – ম্যারি লু

...

প্রশ্নগুলোর উত্তর দিন ⤵️